1. info@www.dailynewsbmuj.com : বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়ন :
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৩:৩৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ময়মনসিংহে তরুনী গণধর্ষণ পূর্বক হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে কোতোয়ালী পুলিশ; গ্রেপ্তার-৩ চট্টগ্রামে প্রতারক চক্রের হাতে সাংবাদিক অপহরণ; মুক্তিপণ আদায় করে ৩০ ঘন্টা পর মুক্তি সেনাপ্রধানের নিয়োগ পেয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান ময়মনসিংহের কোতোয়ালী পুলিশের অভিযানে বিদেশী পিস্তলসহ জজ মিয়া গ্রেফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম এর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন ময়মনসিংহের চরকালিবাড়িতে আলতাব হত্যাকান্ডের মুলহোতা রাসেল অস্ত্রসহ গ্রেফতার কােতায়ালী পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন অপরাধ ও পরোয়ানাভুক্ত সহ গ্রেফতার-১০ ত্রিশালে ট্রিপল মার্ডারের মূল হত্যাকারী গ্রেফতার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান পেট্রোল পাম্পে নো হেলমেট, নো ফুয়েল কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে ময়মনসিংহে মালিকদের সাথে মতবিনিময় সভা ময়মনসিংহ সদর উপজেলা নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে চলছে জয় পরাজয়ের হিসাব নিকাশ

ইশ্বরগঞ্জ উপজেলায় পাওনা টাকা চাওয়াতে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৬৪০ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ময়মনসিংহের ইশ্বরগঞ্জ থানার মাইজবাগ ইউনিয়নের পিতা মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে কুশিপাড়া গ্রামের আশরাফুল আলম সোহেল (২৪) কে কাজী খোকনের ছেলে কাজী রায়হান (২২) গত ২৭ অক্টোবর রাত সাড়ে সাতটার দিকে সোহেলের বাড়ীর দক্ষিন পাশে কাঁচা মাটিয়া নদীর পাড়ে কৌশলে ডেকে নিয়ে ঘাড়ের পিছনে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখে বাড়ীতে চলে যায় ।

এই ঘটনায় ২৮ অক্টোবর ইশ্বরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু হয় । চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলাটি জেলা পুলিশ সুপার মাছুম আহমেদ ভুইয়া ডিবিকে ছায়া তদন্তের নিদের্শনাদেন ।

ওসি ডিবি ফারুক হোসেন তার টিম নিয়ে মাঠে নামেন এবং ২৮ অক্টোবর বিকাল সাড়ে পাঁচটায় ইশ্বরগঞ্জের শিমুলতলী বাজার থেকে আসামী কাজী রায়হানকে গ্রেফতার করে।

ঘটনার বিবরনে পুলিশ জানতে পারে ভিকটিম সোহেল ও আসামী কাজী রায়হান উভয় দীর্ঘদিনের বন্ধু ছিলেন। আসামী টাইলস মিস্ত্রীর কাজ করতো। গত ২ মাস পূর্বে সোহেলের কাছ থেকে কাজী রায়হান ৭০ হাজার টাকা হাওলাত নিয়েছিলেন সুদের উপর। আসামী বিভিন্ন সময় হাওলাত ও সুদের টাকা কিছু কিছু করে পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করেন। টাকা পরিশোধের পরও সোহেল মিয়া আসামী কাজী রায়হানকে কিছু টাকা ধার করে এনে দিতে বলেন। প্রয়োজনে কিডনী বিক্রি করে টাকা এনে দিতে ভয়ভীতি দেখায়। এতে আসামী রাগে, ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে সোহেল মিয়াকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে । হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে সহযোগীতা করেন ডিবির ওসি ফারুক হোসেনের সাথে এসআই মোজাম্মেল হক, রেজাউল আমীন বর্ষন ও পরিমল চন্দ্র সরকার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং